শনিবার, ২৪ Jul ২০২১, ০১:৪৬ পূর্বাহ্ন

পাশে বসে চিকিৎসক, রোগী দেখছেন দৈনিক হাজিরার কর্মচারী!

পাশে বসে চিকিৎসক, রোগী দেখছেন দৈনিক হাজিরার কর্মচারী!

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বৃদ্ধির পরপরই দেশজুড়ে সামনে আসছে বিভিন্ন হাসপাতালের অব্যবস্থাপনার চিত্র। অনেক হাসপাতালের বিরুদ্ধেই রোগীদের পর্যাপ্ত চিকিৎসা সুবিধা নিশ্চিত করতে না পারার অভিযোগ উঠেছে। আর এবার একটি সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে কর্মচারী দিয়ে রোগী দেখানোর অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। দীর্ঘদিন ধরেই রোগীদের অভিযোগ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসকরা রোগীদের সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করেন, পাশাপাশি দৈনিক হাজিরার কর্মচারী দিয়ে রোগীদের চিকিৎসা দেন এবং ও খেয়াল-খুশি মতো হাসপাতাল থেকে বের হয়ে যান। এছাড়া হাসপাতালটিতে রয়েছে দালালদের উৎপাত ও।

অভিযোগের সত্যতা অনুসন্ধানে বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দুপুরে হাসপাতালটিতে গিয়ে সত্যতা মেলে। সরেজমিনে হাসপাতালটিতে গিয়ে দেখা যায়, নিচতলার ১১২নং কক্ষে বসেন মেডিসিন ও হৃদরোগের চিকিৎসকরা। বেলা ১১টা ৪৫ মিনিটে একজন রোগী ওই কক্ষে আসেন। রোগী ওই কক্ষে ঢোকার পর চেয়ারে বসিয়ে দরজায় পাহারাদারের দায়িত্বে থাকা সিবু নামের দৈনিক হাজিরা কর্মচারী কানে স্টেথোস্কোপ লাগিয়ে তার শারীরিক অবস্থার নিরীক্ষা করেন। এসময় পাশেই বসে ছিলেন মেডিসিন বিভাগের জুনিয়র কনসালটেন্ট চিকিৎসক মুনির হোসেন ও চিকিৎসক মুস্তাফিজুর রহমান।

এ বিষয়ে জানতে চিকিৎসক মুনির হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি তেমন কিছুই না। আমি অনেক সময় ওয়ার্ডে রাউন্ডে থাকি। আমার কক্ষে বেশিরভাগ রোগীই বুকব্যথা নিয়ে আসে। সে সময় আমার কক্ষে যে স্টাফ থাকে আমি আসার আগে সে রোগীদের ইসিজি করে আসতে বলে। এটা আমার ও রোগীর সুবিধার্থে করে থাকে।’

এ বিষয়ে ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা. ফখরুল আলম আশেক বলেন, ‘চিকিৎসক ছাড়া অন্য কেউ এমনটি (স্টেথোস্কোপ দিয়ে রোগী দেখা) করতে পারেন না। যিনিই রোগীর সঙ্গে এমন করবেন তাদের বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com