মঙ্গলবার, ২২ Jun ২০২১, ১১:৪৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম :
১৩ বার জেলে গিয়েও মাদক ব্যবসা ছাড়েননি যিনি

১৩ বার জেলে গিয়েও মাদক ব্যবসা ছাড়েননি যিনি

একবার কিংবা দু-বার নয়, এখন পর্যন্ত গ্রেফতার হয়ছেন অন্তত ১৩ বার। কিন্তু এরপরও তিনি ছাড়েননি মাদক ব্যবসা। বরং প্রতিবারই জেল থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে আরও বেশি কৌশলী হয়েছেন। নতুনভাবে শুরু করেছেন মাদক ব্যবসা।

ব্যতিক্রমী এ ব্যক্তির নাম মোনাফ আলী সরকার (৫২)। নীলফামারী জেলার অধিবাসী এই ব্যক্তিকে সোমবার (১০ মে) আবারও ছেলে মাহমুদ হাসান রকিসহ (২৮) এবং চার সহযোগীর সাথে মাদকসহ গ্রেফতার করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও পুলিশের যৌথ অভিযানিক দল।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার (১০ মে) দুপুরে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার বোতলাগাড়ী ইউনিয়নের খোর্দ বোতলাগাড়ী গ্রামের মোনাফ আলী সরকারের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১৪ বোতল ফেনসিডিল ও ৩২টি ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয় এবং বাবা ছেলেসহ চারজনকে আটক করা হয়।

বাবা-ছেলে ছাড়াও আটক সহযোগীরা হলেন- খোর্দ বোতলাগাড়ী গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে মো. সেলিম ওরফে রতন (২৫), বুচারীপাড়া গ্রামের মান্নান (১৯), টগরুপাড়া গ্রামের সোহাগ ইসলাম (২১) ও ছাইয়াপাড়া গ্রামের গোলাম রাব্বানী (২০)।

এ বিষয়ে সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সারোয়ার আলম বলেন, মোনাফ আলী সরকার ও তার ছেলে মাহমুদ হাসান রকির বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয়েছে। চার সহযোগীর প্রত্যেককে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও ৫শ টাকা করে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রমিজ আলম। গ্রেফতারদের নীলফামারী জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মোনাফ আলী সরকার মাদকদ্রব্য সংক্রান্ত মামলায় আগে সৈয়দপুর থানায় ১৩ বার গ্রেফতার হয়ে বিভিন্ন মেয়াদে জেল খেটেছেন। প্রতিবারই জেল থেকে জামিনে বেরিয়ে এসে আবারও তিনি মাদক ব্যবসা পরিচালনা করেন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সর্বশেষ সংবাদ

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com