বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৫:৪৯ অপরাহ্ন

করোনার ভয়ে মৃতদেহ ধরল না পরিবার, শেষকৃত্য করলেন মুসলিম যুবকরা

করোনার ভয়ে মৃতদেহ ধরল না পরিবার, শেষকৃত্য করলেন মুসলিম যুবকরা

করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে ভরতে প্রতিদিনই কয়েক হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করছেন। স্বজনদের আর্তনাদে ভারী হয়ে উঠছে চারপাশ। তবে মৃত্যুভয় কখনও কখনও আপনজনকেও দূরে সরিয়ে দেয়। এমনই একটি ঘটনা ঘটেছে ভারতে।

করোনায় মৃত্যু হয়েছে ভেবে এক হিন্দু নারীর মৃতদেহ ফেলে চলে গিয়েছিলেন স্বজনরা। পরে একদল মুসলিম যুবক হিন্দু সম্প্রদায়ের রীতি মেনে ওই নারীর শেষকৃত্য সম্পন্ন করে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির অনন্য উদাহরণ তৈরি করেন। ইতোমধ্যে এ ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সকলে প্রশংসা করছেন ওই যুবকদের।

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের গয়া জেলার ইমামগঞ্জ পুলিশ স্টেশনের তেতারিয়া গ্রামে। প্রভাবতী দেবী নামে ৫৮ বছরের ওই নারী সম্প্রতি গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে তড়িঘড়ি একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। আরটি-পিসিআর টেস্টও করা হয়। কিন্তু সেই রিপোর্ট নেগেটিভ আসলেও পরবর্তীতে চিকিৎসা চলাকালীনই মৃত্যু হয় ওই নারীর। করোনাতেই মারা যান তিনি-এই ভয়ে ওই নারীর স্বামী এবং দুই ছেলে মৃতদেহ নিতে রাজি হননি। ফলে দীর্ঘক্ষণ গাড়িতেই পড়েছিল মৃতদেহটি। শেষপর্যন্ত খবর পেয়ে ওই নারীর শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে এগিয়ে আসেন মো. রফিক, মো. শারিক, মো. কালামি, মো. বারিক, মো. লাদ্দানসহ এলাকারই বেশ কয়েকজন মুসলিম যুবক।

শেষকৃত্য সম্পন্ন করতে সহযোগিতাকারী শারিক বলেন, করোনার কারণেই প্রভাবতী দেবীর মৃত্যু হয়েছে-এ আশঙ্কায় এবং ভয়ে তার স্বামী বা দুই ছেলে কেউই মৃতদেহ নিতে রাজি হননি। ফলে দুপুর ১২টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত গাড়িতেই পড়েছিল তার মৃতদেহ। শেষপর্যন্ত তারা খবর পেয়ে সকালে সেখানে যান এবং কয়েকজন গাড়ি থেকে মৃতদেহটি নামিয়ে বাঁশ দিয়ে খাট তৈরি করে শবদেহটি নিয়ে শ্মশানের উদ্দেশে রওনা হন।

আপনার বন্ধুদের সাথে এই পোস্ট টি শেয়ার করুন

Comments are closed.

সাম্প্রতিক মন্তব্য

    © All rights reserved © 2018 banglaekattor.com